লাদেনের চেয়েও বেশি জনপ্রিয় তার ভাইঝি

ওসামা বিন লাদেন। পশ্চিমি দুনিয়ার কে না চেনে! তবে আশ্চর্যের ব্যাপার ওসামা বিন লাদেনের চেয়েও বেশি মানুষ চেনে তাঁর ভাইঝিকে।

যুক্তরাষ্ট্র মাতাচ্ছেন ওসামা বিন লাদেনের ভাতিজি। যিনি দেশটির সবচেয়ে জনপ্রিয় মডেলদের একজন। ওয়াফা দুফোর নামের এই মডেল ইউরোপ আমেরিকার দেশগুলোতে তুমুল জনপ্রিয়। একের পর এক মার্কিন গ্ল্যামার হান্ট কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। সম্প্রতি মার্কিন একটি পত্রিকায় প্রকাশ করা হয়েছে ওয়াফা দুফোরের আসল পরিচয়। যেখান থেকে জানা যায় এই তথ্য।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- লাদেনের ভাইঝি তিনি। ওয়াফাও স্বীকার করেছেন এই তথ্য। তিনি জানিয়েছেন, এই পরিচয়ে তিনি একদমই বিরক্ত নন। তার মতে যার যার কর্মফল সে ভোগ করবে। একজনের অপরাধের দায় অন্য কেউ নেবে না কখনোই। ৪৫ বয়সী মডেল ওয়াফা দুফোরের বাবার নাম ইসলাম বিন লাদেন। মা সুইজারল্যান্ডের মেয়ে কারমেন বিন লাদেন।

উল্লেখ্য, আমেরিকার টুইন টাওয়ারে হামলার পর থেকেই বিশ্বজুড়ে আলোচনায় চলে আসেন লাদেন।

২০১১ সালে পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদের একটি বাড়িতে থাকা বিন লাদেনকে হত্যা করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ বাহিনী। মৃত্যুর আগে ও পরে বিন লাদেনের পরিবার সম্পর্কে জানা গেছে অনেক তথ্য। বিশ্বজুড়ে তার ভাইপো-ভাতিজির সংখ্যা চার শতাধিক। এছাড়া বিন লাদেনের স্ত্রী ও সন্তানের সংখ্যাও একাধিক।

বর্তমানে মার্কিন মুলুকের এক নম্বর মডেল লাদেনের ভাইঝি ওয়াফা দুফোর। একের পর এক মার্কিন গ্ল্যামার হান্ট কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। এক মার্কিন পত্রিকায় সদ্য প্রকাশ করা হয়েছে ওয়াফা দুফোরের আসল পরিচয়। একই সঙ্গে ওয়াফা জানিয়েছেন তাঁর এই পরিচয়ে তিনি একদমই বিরক্ত নন।

২০১১ সালে পাকিস্তানের অজ্ঞাতবাস থেকে মার্কিন সেনার হাতে খতম হওয়ার পর লাদেনের সম্পর্কে জানা গিয়েছে একাধিক তথ্য। জানা যায় একাধিক স্ত্রী ছিল লাদেনের। বিশ্ব জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে লাদেনের প্রায় ৪০০ ভাইপো-ভাইঝি। তার মধ্যেই একজন ওয়াফা দুফোরে।

Leave a Response