ঈদের দিন খালেদার কাছে পৌছায় নি বাসার খাবার

বিএনপির চেয়ারপারসন কারাবন্দী খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন স্বজনেরা। আজ বুধবার বিকেলে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের কারাগারে গিয়ে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন তাঁরা। স্বজনেরা দেখা করলেও পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে তাঁদের বাসা থেকে আনা খাবার নিতে দেয়নি কারা কর্তৃপক্ষ।

বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার এ কথা জানিয়েছেন। দিদার বলেন, পরিবারের ২০ জন সদস্য দেখা করার জন্য বেলা তিনটার দিকে কারাফটকের কাছে যান। অবশ্য মাত্র ছয়জন স্বজনকে দেখা করতে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ঈদ উপলক্ষে পরিবারের ২০ জন সদস্য বিএনপির চেয়ারপারসনের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন। তাঁরা বাসা থেকে রান্না করা খাবারও সঙ্গে নিয়েছিলেন।

কারা কর্তৃপক্ষ জানায়, বিকেল পৌনে চারটার দিকে খালেদা জিয়ার স্বজনেরা কারাগারের ভেতর ঢোকেন। প্রায় দেড় ঘণ্টা সেখানে অবস্থান করে বাইরে বেরিয়ে আসেন।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন তাঁর বোন সেলিনা ইসলাম, বোনের স্বামী রফিকুল ইসলাম, ভাই সাঈদ এস্কান্দরের স্ত্রী নাসরিন সাঈদ, ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথি, মেয়ে জাফিয়া রহমান ও তারেক রহমানের স্ত্রীর বোন শাহিনা খান।

বিএনপির চেয়ারপারসনের সঙ্গে দেখা করে বাইরে এসে সেলিনা ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে সুস্থ নন। তিনি তাঁদের মাধ্যমে দেশবাসীকে এবং দলীয় নেতা-কর্মীদের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

সেলিনা ইসলাম বলেন, তাঁরা অনুমতি নিয়েই বোনের (খালেদা জিয়া) জন্য বাসা থেকে খাবার নিয়েছিলেন। কিন্তু কর্তৃপক্ষ তা গ্রহণ করেনি। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া অসুস্থ। বাসার খাবার নিতে না দেওয়ায় ঈদের দিন বিকেল পর্যন্ত তিনি কিছু খাননি।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা আবদুস সাত্তার বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের পছন্দের খাবারগুলোই বাসা থেকে রান্না করে নেওয়া হয়েছিল।

Leave a Response