ঐক্যফ্রন্টের জনসভায় নেতাদের হৃংকার

আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এক জনসভার আয়োজন করে। সরকারের পদত্যাগ, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন ও খালেদা জিয়াসহ রাজবন্দীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ জনসভার আয়োজন করা হয়।

জনসভায় সভাপতির বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কর্মসূচির কথা বলেন। তিনি বলেন, আগামীকাল বুধবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিতীয় দফা সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের দাবি-দাওয়া না মানা হলে ৮ নভেম্বর রোডমার্চ করে ৯ নভেম্বর রাজশাহীতে সমাবেশ করবে এই জোট। এ ছাড়া নির্বাচন কমিশন যদি তফসিল ঘোষণা না পেছায়, তাহলে কমিশন অভিমুখে পদযাত্রা করবে ঐক্যফ্রন্ট।

আজকের সমাবেশে সব বক্তাই খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘আজকে আমি শুরুতেই বলি, খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করি এবং সকল রাজবন্দীর মুক্তি দাবি করি। যে দেশে বিরোধীদলীয় নেতাকে শ্রদ্ধা জানানো হবে না, সে দেশে গণতন্ত্র চলতে পারে না।’

রাস্তাঘাট বন্ধ করে আজকের সমাবেশে আসতে নেতা-কর্মীদের বাধা দেওয়া হয়েছে বলেও সমালোচনা করেন কামাল হোসেন। মামলা ও গ্রেপ্তারের হয়রানি বন্ধের দাবিও জানান। নয়তো এর জবাব সরকারকে দিতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সরকারের পদত্যাগ, খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ ঐক্যফ্রন্টের দাবি আদায় না করে ঘরে ফিরবেন না বলে জানান জনসভার প্রধান বক্তা ও জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব। তিনি প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, ‘পদত্যাগ করে ছোট সরকার করেন। নয়তো সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হবে জাতির। তারপর হবে আপনার।’

জনসভায় উপস্থিত জনতার অধিকাংশই ছিল বিএনপি ও তার নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের। এখানে অংশ নেয় এলডিপি, কল্যাণ পার্টি, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস, ইসলামী ঐক্যজোট, জাগপা, এনডিপি। এ ছাড়া সোনার বাংলা পার্টি ও বিকল্পধারা থেকে বের হয়ে নতুন গড়া বিকল্পধারাও জনসভায় উপস্থিত ছিল।

গতকাল সোমবার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেয় কাদের সিদ্দিকীর দল কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ। জনসভায় কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘আমি কিন্তু বিএনপিতে যোগ দিইনি। কামাল হোসেনের ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিয়েছি।’ বিএনপির কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, বিজয়ী হতে হলে নির্বাচন পর্যন্ত বিএনপি ভুলে যান। এ ছাড়া খালেদা জিয়া জেলে গিয়ে গণতন্ত্রের প্রতীক হয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, মুক্তি খালেদা জিয়ার নয়, শেখ হাসিনার দরকার। এ জনসভা থেকে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার কথাও বলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *