যুক্তরাষ্ট্রে নারী বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত তিন

যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডে এক বন্দুকধারীর গুলিতে তিনজন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার একটি ওষুধের দোকানে ওই বন্দুকধারী গুলি চালান। এরই মধ্যে সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে আটক করে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। সন্দেহভাজন ওই নারী বন্দুকধারীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংবাদমাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, মেরিল্যান্ডের হারফোর্ড কাউন্টির একটি ওষুধের দোকানে স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে এই গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, সন্দেহভাজন বন্দুকধারী একটি হ্যান্ডগান দিয়ে হামলা চালান।

এক সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় শেরিফ জেফরি গাহলার বলেন, বন্দুকধারীর গুলিতে তিনজন নিহত হয়েছেন, আহত হন আরও দুজন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা হাজির হন। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কোনো সদস্য আহত হননি বলে জানিয়েছেন শেরিফ জেফরি।

এনবিসি নিউজের খবরে বলা হয়েছে, সন্দেহভাজন বন্দুকধারী একজন নারী। তবে এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা পাওয়া যায়নি। সংবাদ সম্মেলনে বাড়তি কোনো তথ্য দিতেও রাজি হননি স্থানীয় শেরিফ।

জানা গেছে, ওই ওষুধের দোকানে প্রায় এক হাজার কর্মী কাজ করেন। সেখানে প্রস্তুতকৃত পণ্য গ্রহণ করা হতো এবং বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহের জন্য প্রক্রিয়াজাত করা হতো। স্থানীয় অধিবাসী ও ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কলিন হেনড্রিকসন বলেন, তাঁর বাড়ির কাছেই গুলি চলেছে। তবে এটি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি।

মেরিল্যান্ডের ঘটনার একদিন আগেই পেনসিলভানিয়ায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। আদালত ভবনে এক ব্যক্তির চালানো গুলিতে চারজন আহত হয়। পরে পুলিশের গুলিতে ওই বন্দুকধারী নিহত হন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *