ভারত-পাকিস্তান সেনাদের যৌথ মহড়া

জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে ভারত-পাকিস্তান সেনাদের লড়াইয়ের কথা প্রায়ই শোনা যায়। দুই দেশের সেনারা এবার একসঙ্গে সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ের মহড়ায় অংশ নিচ্ছেন। রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত ওই মহড়ায় প্রথমবারের মতো ভারত ও পাকিস্তানের সেনাদের একসঙ্গে দেখা যাবে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

‘পিস মিশন ২০১৮’ নামের এ সামরিক মহড়ায় ভারত ও পাকিস্তানের সেনাদের পাশাপাশি চীন, রাশিয়াসহ সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের (এসসিও) অন্তর্ভুক্ত দেশের সেনারা অংশ নিচ্ছেন। রাশিয়ার চেবারকুলে গতকাল শুক্রবার থেকে ওই মহড়া শুরু হয়েছে।

ভারতের সেনাবাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল আমান আনন্দ বলেছেন, সেনাবাহিনী ও এসসিও দেশগুলোকে এ মহড়া কাউন্টার টেররিজম অপারেশন সম্পর্কে জ্ঞানলাভের সুযোগ তৈরি করবে। সন্ত্রাসী হুমকি থেকে সুরক্ষায় পেশাদার যোগাযোগ পারস্পরিক বোঝাপড়া, ড্রিল, কন্ট্রোল অবকাঠামোর মতো বিষয়গুলো জানা যাবে।

এ মহড়ায় রাশিয়ার ১ হাজার ৭০০, চীনের ৭০০, ভারতের ২০০ সৈন্য অংশ নিচ্ছেন।

২০০১ সালে চীন, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, রাশিয়া ও তাজিকিস্তান মিলে এসসিও গঠন করে। বর্তমানে এসসিওর পূর্ণ সদস্য দেশ আটটি। এতে ভারত, পাকিস্তান ও উজবেকিস্তান যুক্ত হয়েছে। চারটি দেশ পর্যবেক্ষক ও ছয়টি দেশ ডায়ালগ অংশীদার হিসেবে এর সঙ্গে যুক্ত।

ভারতের সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা বলেছেন, পাকিস্তানের সেনা আছে—এমন কোনো আন্তর্জাতিক মহড়ায় ভারত একসঙ্গে অংশ নেয়নি। তবে জাতিসংঘের মিশন ও কর্মকাণ্ডে দুই দেশের সেনারা একত্রে কাজ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *