বার্সালোনার ৬০০০তম গোল করলেন মেসি

0
31

এত এত আক্রমণ, খেলার প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ শেষ। তবু গোল পাচ্ছে না বার্সেলোনা…।

সুযোগ সব হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। ন্যু ক্যাম্পে হতাশার চাদরে মুড়ে গেছে বার্সা শিবির। সেই হতাশার মেঘ অবশ্য কান্না হয়ে ঝরতে দেননি মেসি। ৬৪তম মিনিটে আর্জেন্টাইন জাদুকরের অসাধারণ ফ্রি-কিক। লা লিগায় বার্সেলোনা দেখা পায় ৬০০০তম গোলের। এরপর যোগ হওয়া সময়ে (৯২তম মিনিট) সুয়ারেজের ক্রস থেকে মেসির ফিনিশিং ছিল মেসির মতোই। এই ফাঁকে ৮৩তম মিনিটে কুতিনহো দুর্দান্ত গোল করেন। আলাভেসের বিপক্ষে ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

আলাভেসকে ৩-০ গোলে হারিয়ে লা লিগার মৌসুম শুরু করেছে বার্সেলোনা। মেসি ছিলেন মেসির মতোই। পেয়েছেন ২ গোল। বার্সেলোনার পক্ষে বাকি গোলটি করেন কুতিনহো।

 

এত এত আক্রমণ, খেলার প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ শেষ। তবু গোল পাচ্ছে না বার্সেলোনা…।

সুযোগ সব হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। ন্যু ক্যাম্পে হতাশার চাদরে মুড়ে গেছে বার্সা শিবির। সেই হতাশার মেঘ অবশ্য কান্না হয়ে ঝরতে দেননি মেসি। ৬৪তম মিনিটে আর্জেন্টাইন জাদুকরের অসাধারণ ফ্রি-কিক। লা লিগায় বার্সেলোনা দেখা পায় ৬০০০তম গোলের। এরপর যোগ হওয়া সময়ে (৯২তম মিনিট) সুয়ারেজের ক্রস থেকে মেসির ফিনিশিং ছিল মেসির মতোই। এই ফাঁকে ৮৩তম মিনিটে কুতিনহো দুর্দান্ত গোল করেন। আলাভেসের বিপক্ষে ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

গোল মিসের ঝালটা কী বলের ওপরই তুলতে চাইছেন সুয়ারেজ! ছবি: রয়টার্সপ্রথমার্ধে বার্সেলোনার একের পর এক আক্রমণ আর মেসি-সুয়ারেজ-ডেম্বেলেদের গোলমুখে শট আটকাতেই সময় পার হয়ে যায় আলাভেসের খেলোয়াড়দের। ৮০ শতাংশ সময়ই বার্সা খেলোয়াড়দের পায়ে বল থাকে। স্বাগতিকেরা গোলমুখে শট নেন ১১টি। অবশ্য এর বেশির ভাগই বেপথু ছিল। মাত্র ২টি শট লক্ষ্যে রাখতে পেরেছে বার্সার খেলোয়াড়েরা। এই যেমন, ম্যাচের তৃতীয় মিনিটের মাথাতেই আলাভেসের গোলমুখে শট নেন মেসি। সেটি গোলপোস্টের পাশ দিয়ে চলে যায়। অল্পের জন্য রক্ষা পায় আলাভেস। ষষ্ঠ মিনিটে আবারও আলাভেসের গোলপোস্টে শট নেন মেসি। এবার বলের ঠিকানা সাইড নেট। এরপর বেশ কয়েকবার ভালো সুযোগ পেয়েও বল জালে জড়াতে পারেননি মেসি, সুয়ারেজ কিংবা ডেম্বেলে।
৩১তম মিনিটে গোলরক্ষককে একা পেয়েও সুযোগ হাতছাড়া করেন সুয়ারেজ। ৩৮তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে সুবিধাজনক জায়গায় ফ্রি-কিক পায় বার্সেলোনা। মেসির ফ্রি-কিক গোলবারে গিয়ে লাগে। ফের গোলবঞ্চিত বার্সা। পরের মিনিটেই মেসির পাস থেকে ডি-বক্সে বল পান ডেম্বেলে। ডেম্বেলের শট আটকে দিয়ে দলকে নিশ্চিত গোলের হাত থেকে বাঁচান আলাভেসের গোলরক্ষক। মিনিট দু-এক পর সুযোগ হাতছাড়া করেন সুয়ারেজ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here