ওমর-মেহবুবার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি পেলেন স্বজনরা

জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক দুই মুখ্যমন্ত্রী ওমর আব্দুল্লাহ ও মেহবুবা মুফতি বন্দি হওয়ার প্রায় একমাস পর তাদের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি পেয়েছেন স্বজনরা। এরই মধ্যে ওমর আব্দুল্লাহর সঙ্গে দেখা করেছেন বোন সাফিয়া ও তার সন্তানেরা। আর মেহবুবা মুফতির সঙ্গে দেখা করেছেন মা ও বোন। 

রোববার (১ সেপ্টেম্বর) সূত্রের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

গত ৫ আগস্ট কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের জেরে গৃহবন্দি করা করা হয় ওমর আব্দুল্লাহ ও মেহবুবা মুফতিকে। শ্রীনগরের হরি নিবাসে বন্দি রয়েছেন ওমর আব্দুল্লাহ, আর মেহবুবা মুফতিকে রাখা হয়েছে চাশমে শাহীতে পর্যটন বিভাগের একটি বাড়িতে।

জানা যায়, এ সপ্তাহে ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ওমর আব্দুল্লাহর সঙ্গে দু’বার দেখা করেছেন পরিবারের সদস্যরা। ডেপুটি কমিশনারের কার্যালয়ে বহুবার ঘোরাঘুরির পর অবশেষে গত সোমবার (২৬ আগস্ট) দেখা করার অনুমতি পান তারা। শনিবারও (৩১ আগস্ট) ওমর আব্দুল্লাহর পাশে ২০ মিনিট সময় কাটিয়েছেন সাফিয়া ও তার ছেলে-মেয়ে। এছাড়া, ঈদের দিন (১২ আগস্ট) এ নেতার সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের ফোনে কথা বলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল।

পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা মেহবুবা মুফতির সঙ্গে গত বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) চাশমে শাহীর সাব-জেলে দেখা করেছেন তার মা ও বোন।এদিকে, ওমর আব্দুল্লাহর বাবা ও তিনবারের মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহকেও গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে বাড়ির টেলিফোন সংযোগ। ছেলের সঙ্গে দেখা করতে চাওয়ার আবেদনও বাতিল করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। 

জানা যায়, বন্দি অবস্থায় সিনেমা দেখে ও বই পড়ে সময় কাটাচ্ছেন ওমর আব্দুল্লাহ ও মেহবুবা মুফতি। তবে, সেখানে কোনো সংবাদপত্র বা ক্যাবল টিভি চ্যানেলের সংযোগ নেই।   

কর্তৃপক্ষ জম্মু-কাশ্মীরের অবরোধ ধীরে ধীরে তুলে নেওয়ার কথা বলছে বেশ কয়েকদিন থেকেই। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি জেলায় ফের চালু হয়েছে মোবাইল সেবা। খুলছে স্কুল-কলেজও। তবে, আটক কয়েকশ’ রাজনৈতিক নেতা কবে মুক্তি পাবেন, সে বিষয়ে মুখ খুলছেন না কেউই।

Leave a Response