ইয়েমেনে মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত, আফগানিস্তানে ২ সৈন্য নিহত

ইয়েমেনে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর একটি এমকিউ-নাইন ড্রোন গুলিতে ভূপাতিত হয়েছে এবং আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর দুই সদস্য নিহত হয়েছেন।ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রিত রাজধানী সানার দক্ষিণপূর্বে ধামার প্রদেশে এমকিউ-নাইন ড্রোনটিকে গুলি করে ভূপাতিত করা হয়েছে বলে বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। 

তাদের বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী একটি মার্কিন ড্রোনকে গুলি করে নামিয়েছে বলে আগেই জানিয়েছিল হুতি সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র। এরপর পরিচয় না প্রকাশ করার শর্তে মার্কিন কর্মকর্তারা জানান, মঙ্গলবার রাতে গুলিতে ড্রোনটি ভূপাতিত হয়েছে। 

ভূপাতিত ড্রোনটি অস্ত্রসজ্জিত ছিল এবং হুতিদের সার্ফেস টু এয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে সেটি ভূপাতিত হয়েছে, এমনটি মনে করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

ব্যয়বহুল ড্রোন হারানো বড় ধরনের ক্ষতি হলেও এটি নজিরবিহীন ঘটনা নয় এবং এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র বড় ধরনের কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাবে না বলেই মনে করছেন তারা।

এর আগে জুনেও আরেকটি মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করেছিল হুতি বিদ্রোহীরা।

এক বিবৃতিতে মার্কিন সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, তাদের একটি ড্রোনের ওপর হামলা হয়েছে এমন প্রতিবেদনগুলো তদন্ত করে দেখছে তারা।

হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, ড্রোন হারানোর প্রতিবেদনগুলোর বিষয়ে তারা অবগত আছে এবং ঘটনার বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে জানানো হয়েছে।

তাদের নিজেদের তৈরি রকেটের দিয়ে মার্কিন ড্রোনটি ভূপাতিত করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন হুতি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারিয়া।

একইদিন আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর দুই সদস্য নিহত হয়েছেন বলে নেটো নেতৃত্বাধীন রেজোলুট সার্পোট মিশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বিস্তারিত আর কিছু জানানো হয়নি। এদের নিয়ে চলতি বছর আফগানিস্তানে নিহত মার্কিন সৈন্যের সংখ্যা অন্তত ১৪ জনে দাঁড়ালো। বর্তমানে আফগানিস্তানে প্রায় ১৪ হাজার মাকিন সৈন্য মোতায়েন আছে।

আফগানিস্তানে মার্কিন সামরিক বাহিনীর ভূমিকা ‘হাস্যকর’ পুলিশ বাহিনীতে পরিণত হয়েছে বলে মঙ্গলবার মন্তব্য করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

Leave a Response