আমাকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে: ইমরান খান

জাতীয় পরিষদে আস্থা ভোটে হেরে সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রিত্ব হারিয়েছেন ইমরান খান। এর পর থেকে নির্বাচনের দাবিতে বিভিন্ন স্থানে জনসভা করছেন। গতকাল ওই জনসভায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, ‘হত্যার ষড়যন্ত্রে যুক্ত সবার নাম আমার কাছে আছে। আগেই এটা জানতাম, কয়েক দিন আগে সবটা জেনেছি।’ এ প্রসঙ্গে ভিডিও ধারণের ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, ‘যদি আমার সঙ্গে কিছু ঘটে, তাই এর সঙ্গে দেশে ও দেশের বাইরে কারা জড়িত ছিল, পাকিস্তানিরা যেন তা জানতে পারেন।’

ইমরান খান বলেন, তাঁকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে এবং ওই ভিডিওতে দেশের লুটেরাদের সঙ্গে কারা ষড়যন্ত্রে জড়িত, সেটা ফাঁস করার চেষ্টা করেছেন। তাঁর এই ভিডিও সব দেশদ্রোহীর মুখোশ খুলে দেবে এবং তাঁকে হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে কার কী ভূমিকা, তা উন্মোচিত হয়ে যাবে বলেও দাবি করেন তিনি।

ইমরান খান আরও বলেন, ‘তারা ( ষড়যন্ত্রকারীরা) ইমরান খানকে পথের বাধা মনে করে এবং তাই আমাকে সরিয়ে দিতে চায়। এ জন্য আমি ভিডিওটি ধারণ করেছি। কারণ, আমার মনে হয় এটা রাজনীতি নয়, এটা জিহাদ। আমি চাই যদি আমার সঙ্গে কিছু ঘটে তখন এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে কারা জড়িত, তা যেন সব পাকিস্তানি জানতে পারেন।’

ক্ষমতা থেকে অপসারিত হওয়ার পর থেকে সরকার হটাতে জনসভা শুরু করেছেন ইমরান খান। আজাদি মার্চ নামে ইসলামাবাদ অভিমুখে সমর্থকদের নিয়ে পদযাত্রার (মার্চ) ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। আর এই মার্চকে সামনে রেখে নেতা-কর্মীদের উজ্জীবিত করতে দেশজুড়ে একের পর এক সমাবেশ করছেন।

আগামী ২০ মের পর যেকোনো সময় মার্চ শুরু হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সরকার তাঁর দলের সমাবেশ পণ্ড করার চেষ্টা করছে অভিযোগ তুলে এর সমালোচনাও করেন ইমরান খান।

Leave a Response